৮৪ বছর পর দেখা গেল বিরল প্রজাতির লাল টুকটুকে সাপ


লাল টুকটুকে একটি সাপ— নাম ‘রেড কোরাল কুকরি স্নেক’। সাপটির একটি ছবি সোস্যাল মিডিয়ায় ব্যাপক শেয়ার হয়েছে। বিরল প্রজাতির এই সাপটির দেখা মিলেছে ভারতের উত্তর প্রদেশে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, সাপটি দেখা গিয়েছে উত্তর প্রদেশের লখিমপুর খেড়ির একটি পার্কে। সাপের একটি ছবি তুলে তা টুইটারে শেয়ার করেছে বন্যপ্রাণ সংরক্ষণ ও পর্যটন সংস্থা ওয়াইল্ডলেন্স। এরপর ছবিটি ভাইরাল হয়ে যায়।

প্রাণী বিশেষজ্ঞরা বলেন, এই ধরনের লাল সাপ শেষবার দেখা গিয়েছিল ১৯৩৬ সালে, এই উত্তর প্রদেশেই, লখিমপুরে। সাপটির বৈজ্ঞানিক নাম ‘ওলিগোডন খেরিয়েন্সিস’। উজ্জ্বল রঙের এই সাপ এককথায় বেশ দুর্লভ! এবার প্রায় ৮৪ বছর পর ফের দেখা গেলো।

ওয়াইল্ডলেন্স সাপের ছবিটি শেয়ার করে লিখেছে, ‘উত্তর প্রদেশের দুধওয়া ন্যাশনাল পার্ক বৈচিত্র্য এবং আশ্চর্যে ভরা। রেড কোরাল কুকরি সাপ একটি খুব দুর্লভ প্রজাতির সাপ। একটি ঝুপড়ির পাশে এই সাপটিকে দেখা গেছে।’

রেড কোরাল কুকরি সাপ বিষাক্ত নয় বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। এই সাপ কেবল পোকামাকড় খায়। এই সাপের নাম এর লাল উজ্জ্বল রঙ এবং এর দাঁতের জন্য দেওয়া হয়েছে।

বিশেষজ্ঞরা বলেন, নেপালে যে ছুরি পাওয়া যায়, খুখরি নামে, তার ধারের সঙ্গে এই সাপের দাঁতের মিল আছে। সাপ এই দাঁত ডিম ভাঙার জন্য ব্যবহার করে।


আজব খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

পরবর্তী পোস্ট

মাসুদ রানার দুশ্চিন্তা ‘ক্যাপ্টেন’কে নিয়েই

সোম জুলা ২৭ , ২০২০
মানুষ তার প্রিয় পোষ্যটিকে ভালোবেসে কতো নামেই না ডেকে থাকেন। গুল্লু, গুল্ট, পুল্টু, পুচ্চু আর কত কি! তেমনি নওগাঁর বদলগাছী উপজেলার জগদিশপুর গ্রামের মাসুদ রানা জয়পুরহাটের পাঁচবিবি পৌর শহরের গো-হাটি বাজার থেকে ৮৬ হাজার টাকা দিয়ে ‘অস্ট্রেলিয়ার ফিজিয়ান’ জাতের একটি গরু কেনেন। তারপর আদর করে এটির নাম দেন ‘ক্যাপ্টেন’। মাত্র এক বছর দুই মাস আগে কেনা গরুটিকে তিনি বেশ যত্নআত্তি করেন, নিয়মিত খৈল-ভুসি মিশ্রিত পানির সঙ্গে আপেল, কমলা, মাল্টা ও মানিক কলা খাওয়াতে থাকেন মাসুদ রানা। সেই সঙ্গে গরুকে খুদের […]