করমর্দন না করায় জার্মানির নাগরিকত্ব পেল না লেবাননের চিকিৎসক


নারী কর্মকর্তার সঙ্গে করমর্দন না করায় জার্মানির নাগরিকত্ব পাওয়া থেকে বঞ্চিত হতে হলো লেবাননের ৪০ বছর বয়সী এক মুসলিম চিকিৎসককে।

এক নির্দেশনায় জার্মানির আদালত বলেছেন, ওই চিকিৎসক ধর্মীয় বিধিনিষেধ মেনে নারীদের সঙ্গে হাত মেলাতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন।

বিচারক বলছেন, হাত মেলানোর একটি অর্থ রয়েছে। এটা কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষেত্রেও গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। একে অপরের সঙ্গে হাত মেলানো সামাজিক, সাংস্কৃতিক এবং আইনি জীবনে গভীরভাবে তাৎপর্যপূর্ণ; যা আমাদের একসঙ্গে থাকার পথ তৈরি করে দেয়।

লেবাননের ওই ব্যক্তি জার্মানিতে চিকিৎসাবিদ্যা পড়েছেন এবং একটি ক্লিনিকে কর্মরত আছেন। তবে তার কিছু আচরণের কারণে এখনও নাগরিকত্ব পাননি।  সূত্র : ডয়েচেভেলে


আজব খবর

পরবর্তী পোস্ট

৬ মণ জমানো কয়েন নিয়ে বিপাকে খবির

মঙ্গল অক্টো ২০ , ২০২০
প্রায় ছয় মণ ওজনের ৬০ হাজার টাকার কয়েন (ধাতব মুদ্রা) নিয়ে বিপাকে পড়েছেন মাগুরার মহম্মদপুর উপজেলার ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী খাইরুল ইসলাম খবির (৪৫)। ১০ বছর ধরে ২৫ পয়সা, ৫০ পয়সা, ১ টাকা ও ২ টাকার ধাতব মুদ্রা জমিয়ে ছিলেন খবির। এ সব মুদ্রা সরকার বাতিল না করলেও খরিদ্দাররা নিতে চান না। কার্যত অচল এই বিপুল পরিমাণ কয়েন নিয়ে বিরম্বনায় পড়েছেন খবির। খাইরুল ইসলাম খবিরের বাড়ি মহম্মদপুর উপজেলা সদরের জাঙ্গালিয়া গ্রামে। তিনি সবজি ব্যবসায়ী। খবির সংবাদমাধ্যমকে বলেন, আমি ২৫ বছর ধরে উপজেলা […]