বিবর্তন শুরু হয়ে গেছে মানুষের মধ্যে


মানুষের মধ্যে ক্ষুদ্র আকারে বিবর্তন শুরু হয়ে গেছে বলে অস্ট্রেলিয়ার বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন। নতুন এক গবেষণার পর তারা এমন তথ্য প্রকাশ করেন।

বিজ্ঞানীরা বলছেন, ইদানীং জন্ম নেওয়া শিশুদের আক্কেল দাঁত উঠছে না। অনেকে আবার জন্ম নিচ্ছে অতিরিক্ত হাড় নিয়ে। এছাড়া অনেক মানুষের হাতেই অতিরিক্ত ধমনি পাওয়া যাচ্ছে, যা এক সময় ছিল বিরল। খবর : দ্য ইন্ডিপেনডেন্ট।

অস্ট্রেলিয়ার অ্যাডিলেডের ফ্লিন্ডার্স ইউনিভার্সিটির গবেষক ড. তেঘান লুকাস বলেন, স্বল্প সময়ের মধ্যে মানুষের মধ্যে বেশ কিছু পরিবর্তন দেখা গেছে। খাদ্যাভ্যাসে পরিবর্তনের কারণে মানুষের চেহারার আকৃতিও ছোট হওয়া শুরু করেছে। ফলে ছোট চোয়ালের কারণে দাঁতের জন্য মাড়িতে স্থানের অভাব দেখা দিয়েছে।

তিনি আরও বলেন, এটা এমন সময় ঘটছে যখন আমরা আগুনের ব্যবহার শিখেছি এবং আরও বেশি খাদ্য প্রক্রিয়াজাত করছি। মাড়িতে জায়গার অভাবে অনেক মানুষের জন্মের পর আক্কেল দাঁত উঠছে না।

গবেষক দল আরও জানান, ছোট মুখ ছাড়াও জন্মের সময় হাত ও পায়ে অতিরিক্ত হাড় নিয়ে জন্ম নেওয়া মানুষের সংখ্যা বাড়ছে কিংবা তাদের পায়ের পাতায় দুই বা ততোধিক হাড়ের মধ্যে অস্বাভাবিক সংযোগ দেখা যাচ্ছে।

ড. লুকাসের সঙ্গে ম্যাসিয়েজ হেনবার্গ ও জালিয়া কুমারাতিলকে পরিচালিত যৌথ গবেষণায় আরও বলা হয়েছে, ১৯ শতকের শেষ থেকে মানুষের মধ্যম শিরার উল্লেখযোগ্য বৃদ্ধি ঘটছে।

ড. লুকাস আরও বলেন, ১৮ শতক থেকে অঙ্গ ব্যবচ্ছেদ বিশেষজ্ঞরা প্রাপ্তবয়স্কদের মধ্যে এ শিরার প্রসারণ নিয়ে গবেষণা করছেন এবং আমাদের গবেষণায় দেখা গেছে এটি সত্যিকারার্থে প্রসারিত হচ্ছে।


আজব খবর

পরবর্তী পোস্ট

করমর্দন না করায় জার্মানির নাগরিকত্ব পেল না লেবাননের চিকিৎসক

মঙ্গল অক্টো ২০ , ২০২০
নারী কর্মকর্তার সঙ্গে করমর্দন না করায় জার্মানির নাগরিকত্ব পাওয়া থেকে বঞ্চিত হতে হলো লেবাননের ৪০ বছর বয়সী এক মুসলিম চিকিৎসককে। এক নির্দেশনায় জার্মানির আদালত বলেছেন, ওই চিকিৎসক ধর্মীয় বিধিনিষেধ মেনে নারীদের সঙ্গে হাত মেলাতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন। বিচারক বলছেন, হাত মেলানোর একটি অর্থ রয়েছে। এটা কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষেত্রেও গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। একে অপরের সঙ্গে হাত মেলানো সামাজিক, সাংস্কৃতিক এবং আইনি জীবনে গভীরভাবে তাৎপর্যপূর্ণ; যা আমাদের একসঙ্গে থাকার পথ তৈরি করে দেয়। লেবাননের ওই ব্যক্তি জার্মানিতে চিকিৎসাবিদ্যা পড়েছেন এবং একটি ক্লিনিকে কর্মরত […]