ব্রা ঝোলানো হয় যে কাঁটাতারের বেড়ায়


ব্রা অর্থাৎ অন্তর্বাস কখনো যে অন্তরের বাসা হয়েও দাঁড়ায়, সেটা জানেন কি? হ্যাঁ, এমনই এক জায়গার খবর আজ আপনাকে দেব, যেখানে নানা রংয়ের অন্তর্বাস ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে।

এমন অদ্ভুত কাণ্ড দেখার জন্য ভিড় জমাচ্ছেন হাজারো পর্যটক। এমনকি কেউ কেউ নিজের অন্তর্বাসও খুলে সেই বেড়ায় ঝুলিয়েও রাখছেন!

ঘটনাটি নিউজিল্যান্ডের সেন্ট্রাল ওটাগোয়। এই এলাকার কয়েক কিলোমটার জুড়ে একটি তারের বেড়া রয়েছে। যেটি কারড্রোনা ব্রা ফেন্স নামে পরিচিত। হঠাৎ ব্রা দিয়ে এমন অদ্ভুত ধরনের বেড়া তৈরি কারণ কী?

কথিত আছে, ১৯৯৯ সালে চার নারীর নিজেদের অন্তর্বাস খুলে ওই বেড়ায় ঝুলিয়ে দিয়েছিলেন। নিছকই নববর্ষ পালনের উল্লাসে এমনই কাজ করেছিলেন বলে জানা যায়।

কার্ড্রোনা হোটেলে নববর্ষ উদযাপন করে তারা ঠিক করেন, ব্রা খুলে অবাধ স্বাধীনতা ঘোষণা করবেন। এরপর সময় যত গড়িয়েছে ওই বেড়ায় ব্রায়ের সংখ্যা বেড়েই চলেছে।

প্রতিদিন কোনো না কোনো নারী নিজেদের অন্তর্বাস ঝুলিয়ে দিয়ে যান এখানে। কালক্রমে সংখ্যাটা কয়েক হাজারে দাঁড়িয়েছে এখন। এমনকি পর্যটকদের মনও কাড়তে শুরু করেছে এই জায়গা।

অনেকে একে দৃশ্যদূষণ বলে সমালোচনা করলেও, ওই জায়গার জনপ্রিয়তায় কখনও ভাঁটা পড়েনি।


আজব খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

পরবর্তী পোস্ট

২৭তম বিয়ে করতে গিয়ে ধরা খেলো বাবু

বুধ জানু ১৩ , ২০২১
একে একে ২৬টি বিয়ে করেছেন ৩৭ বছর বয়সী বাবু শেখ ওরফে বাবু চোরা। তার ২৭তম বিয়ের দিন ঠিক হয়েছিল বৃহস্পতিবার (১৪ জানুয়ারি)। কিন্তু তার আগেই ধরা পড়লেন পুলিশের হাতে! ফরিদপুরের সদরপুর উপজেলার বাবুর দুটিই নেশা-দামি মোবাইল ফোন চুরি আর বিয়ে করা! তার সহযোগি আবুল খায়ের মাতুব্বরকে (৩২) আটক করেছে পুলিশ। বুধবার (১৩ জানুয়ারি) দুপুরে আটককৃত দুই যুবককে তিন দিনের রিমান্ড চেয়ে ফরিদপুর আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। ধরা যেহেতু পড়েছে এবার তার নেশা কেটে যাবে! এরআগে মঙ্গলবার দিনগত রাতে ভাঙ্গা […]