Malian woman gives birth to 9 babies : একসঙ্গে ৯ সন্তান জন্ম!


জমজ দুটি-তিনটি কিংবা চারটি সন্তান জন্মানোর ঘটনা বেশ স্বাভাবিক। এমনটি হরহামেশাই ঘটছে বিভিন্ন দেশে। এমনকি আমাদের দেশেও। তবে কখনও কি শুনেছেন, কোনো নারী একসঙ্গে একটি বা দুটি নয়, একসঙ্গে জন্ম দিয়েছেন ৯টি সন্তান?

অবিশ্বাস্য হলেও সত্যি। আফ্রিকার দেশ মালি। একানে ২৫ বছর বয়সী এক নারী একসঙ্গে ৯টি সন্তানের জন্ম দিয়েছেন। এতোগুলো সন্তান একসঙ্গে জন্ম দেওয়ার ফলে গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ডে নামও লিখিয়েছেন। তিনিই প্রথম নারী, যিনি একসঙ্গে সর্বোচ্চ সংখ্যক সন্তান জন্ম দিয়েছেন।

ওই নারীর নাম হালিমা সিসো। গর্ভকালে তার পরীক্ষা করে সাতটি শিশুর উপস্থিতি টের পান চিকিৎসকরা। তবে ডেলিভারির সময় দেখা যায়, সাতটি নয়, আরও দুটি সন্তান বেশি জন্ম নিয়েছে। সব মিলিয়ে ৯টি। এর মধ্যে পাঁচটি মেয়ে ও চারটি ছেলে সন্তান।

হালিমার স্বামী জানান, ‘একসঙ্গে পাঁচ মেয়ে ও চার ছেলের বাবা হয়ে আমি খুবই খুশি ও গর্বিত।’

এরআগে ২০০৯ সালে আমেরিকায় একসঙ্গে আট সন্তানের জন্ম দিয়ে গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডে নাম লেখান এক নারী। নাদ্যা সুলেমান নামক ওই নারীর সব সন্তানেরাই সুস্থ আছে। বর্তমানে তাদের বয় ১২ বছর। জানা যায়, তিনি ভিট্রো ফার্টিলাইজেশনের মাধ্যমে গর্ভধারণ করেছিলেন।

তারও আগে ১৯৭১ সালে অস্ট্রেলিয়ান এক নারী এবং ১৯৯৯ সালে মালয়েশিয়ান এক নারীও ৯ সন্তানের জন্ম দেন। তবে দুর্ভাগ্য, সেই সন্তানেরা জন্মের পরপরই মারা যায়।

সুস্থভাবে একসঙ্গে ৯ সন্তানের জন্ম দেওয়ার ঘটনা সত্যিই ব্যতিক্রমী। তিনি ২৫ সপ্তাহ পর্যন্ত গর্ভবতী ছিলেন। পরবর্তীতে আরও পাঁচ সপ্তাহ বাড়িয়ে তার ডেলিভারি করা হয়।

সূত্র: বিবিসি


আজব খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

পরবর্তী পোস্ট

Grandson married to grandmother : লুডু খেলতে গিয়ে দাদি-নাতির প্রেম, অবশেষে বিয়ে!

মঙ্গল সেপ্টে ৭ , ২০২১
দীর্ঘদিনের প্রেম। অবশেষে সেই প্রেম থেকে প্রণয়। বিধবা দাদিকে বিয়ে করলেন নাতি। এ বিয়েতে কাবিন ধরা হয়েছে পাঁচ লাখ টাকা। ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার (৬ সেপ্টেম্বর) ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার বড়হিত ইউনিয়নের নওপাড়া গ্রামে। এ নিয়ে এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা যায়, নওপাড়া গ্রামের মৃত ছামছুদ্দিন ওরফে শামের ৫৫ বছর বয়সী স্ত্রী শিরীনা আক্তারের সঙ্গে প্রতিবেশী আব্দুর রশিদের ২০ বছর বয়সী ছেলে ফারুক মিয়ার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। তারা সম্পর্কে দাদি-নাতি। দাদার মৃত্যুর পর থেকে তাদের মধ্যে গোপন প্রেমের সম্পর্ক […]