26-year-old man trapped inside body of a baby : বয়স ২৬ বছর, অথচ তিনি এক বছরের শিশু!


বয়স ২৬ বছর। টগবগে যুবক। না, বয়স ২৬ হলেও মনপ্রীত সিং নামের এই যুবক এখনও শিশুই রয়ে গেছেন। স্বাভাবিক মানুষের মতো জীবন উপভোগ করতে পারেননি। বিরল এক রোগে আক্রান্ত হয়ে অন্যদের মতো বেড়ে উঠতে পারেননি তিনি।

বয়স যখন ১১ মাস, তখন মনপ্রীতের শারীরিক ও মানসিক বিকাশ থমকে যায়। এ কারণে কথা বলতেও শেখেননি মনপ্রীত। বিরল এক রোগে আক্রান্ত হওয়ায় সঠিক চিকিৎসাটুকুও পাননি তিনি।

১৯৯৫ সালে ভারতের পাঞ্জাব রাজ্যে জন্মগ্রহণ করেন মনপ্রীত সিং। জন্মের পর তিনি আর পাঁচটি স্বাভাবিক শিশুর মতোই ছিলেন। মনপ্রীতের বাবা একজন দরিদ্র কৃষক হওয়ায় সন্তানকে উন্নত চিকিৎসা করাতে পারেননি।

মনপ্রীতকে তার প্রতিবেশীরাডাকেন ‘পিন্ট সাইজ ম্যান’ বলে। বর্তমানে মনপ্রীত তার চাচা-চাচির কাছে থাকেন। তার বিরল রোগটি শনাক্তের জন্য অনেক চেষ্টা করেছেন চিকিৎসকরা। অবশেষে তারা জানান, মনপ্রীতের রোগটি সম্ভবত হরমোনের একটি ব্যাধি। অনেক চিকিৎসক ও গবেষকরাই মনপ্রীতের এই বিরল রোগ নিয়ে গবেষণা করেছেন। তাদের মতে, মনপ্রীত ল্যারন সিনড্রোমে ভুগছেন।

মনপ্রীতের পা ও মুখ বেশ বড়। তার শরীরের চামড়া ফ্যাকাশে। বিভিন্ন অঙ্গভঙ্গির মাধ্যমে অন্যদের সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেন মনপ্রীত। তিনি হাসতে, চিৎকার করতে ও কাঁদতে পারেন। তবে কথা বলতে পারেন না। শুধু মা, মামা ইত্যাদি শব্দ সামান্য উচ্চারণ করে থাকেন।

এছাড়াও মানুষকে অনুকরণ করতে পারেন মনপ্রীত। তিনি ইশারায় যোগাযোগ করার দক্ষতা শিখেছেন। তার চাচা করনভীর সিং (৪৫) বলেন, কোনো অতিথিকে দেখলে তার সঙ্গে করমর্দন করে অভ্যর্থনা জানান ও বসার জন্য অনুরোধ করেন মনপ্রীত।

কুকুর বা অন্য কোন প্রাণীর ডাক শুনলে সে ভয় পায় ও কাঁদে। কোনো শিশু বা অতিথিকে দেখলে তার সঙ্গে বসার জন্য হাত দিয়ে ইশারা করেন। এমনকি তাদের সঙ্গে বন্ধুত্ব গড়ারও চেষ্টা করেন মনপ্রীত।

চিকিৎসার বিষয়ে চাচা জানান, আমরা তাকে বেশ কয়েকজন ডাক্তারের কাছে নিয়ে গিয়েছিলাম। তবুও তার অবস্থা ভালো হয়নি। আমরা তার ভাগ্য মেনে নিয়েছি ও আনন্দদায়ক পরিবেশে তাকে লালন-পালন করছি।

তিনি আরও বলেন, ‘আমরা তাকে কয়েকবার তার বাবা-মায়ের কাছে ফেরত পাঠিয়েছিলাম। তবে সে তাদের সঙ্গে থাকতে চায় না। মনপ্রীত তখন খাওয়া বন্ধ করে সারাক্ষণ কাঁদে।’

সূত্র : মেট্রো, জেন্টসাইড


আজব খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

পরবর্তী পোস্ট

World’s Dirtiest Man : ৬৭ বছরে একবারও গোসল করেননি তিনি!

বৃহঃ সেপ্টে ৯ , ২০২১
Amou Haji, World’s Dirtiest Man. 87-Year-Old Man Who Hasn’t Bathed In 67 Years. স্নান বা গোসল না করে কতদিন থাকা যায়? একদিন? দুইদিন? কেউ কেউ হয়তো দুয়েকদিন গোসল না করে থাকতে পারেন। তাই বলে এক টানা ৬৭ বছর! হ্যা, জানলে অবাক হবেন, ইরানের কেরমানশাহ প্রদেশের একটি গ্রাম দেজগাহ। ওই গ্রামের বাসিন্দা আমু হাজি। তিনি দীর্ঘ ৬৭ বছর ধরে গোসল না করে দিব্যি জীবন-যাপন করছেন। আমু হাজি বিশ্বের সবচেয়ে নোংরা মানুষ হিসেবে পরিচিত। বর্তমানে তার বয়স ৮৭ বছর। সমাজ ও পরিবারহীন […]